মেনু
হোম
ভারতে উচ্চ শিক্ষা
প্রতিষ্ঠানের জন্য
প্রতিষ্ঠানের জন্য

প্রতিষ্ঠানের জন্য

শিক্ষা মানুষের জন্মগত পাঁচটি মৌলিক অধিকারের একটি যা অন্য সব অধিকারগুলোকে প্রভাবিত এবং বিকশিত করে। শিক্ষার বাণিজ্যিকীকরণ মানব সভ্যতার জন্য অভিশাপ এবং অশনি সংকেত। শিক্ষা এবং জ্ঞান অর্জনের যে কোন মাধ্যমকে ব্যবসার হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহার করা অপরাধ যা মানব সভ্যতার জন্য ভয়ংকর পরিণতি বয়ে আনতে পারে। 

গবেষণা, ক্যাম্পাসে বহুজাতিক সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্য সৃষ্ঠি এবং জ্ঞানের বিশ্বায়নের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে বিদেশি শিক্ষার্থী ভর্তি করা উচিৎ। 'জী বাংলাদেশ' বিদেশি শিক্ষার্থী ভর্তির নামে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর বানিজ্যিকভাবে শিক্ষার্থী ভর্তি পন্থা কোন ভাবেই সমর্থন করেনা এবং আমরা এর ঘোর বিরোধী। 

জ্ঞানের বিশ্বায়ন প্রক্রিয়ার অংশ হিসাবে, বাংলাদেশ থেকে প্রতি বছর অনেক শিক্ষার্থী ভারত সহ পৃথিবীর বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নের জন্য আবেদন করে এবং ভর্তি হয়। শিক্ষার্থীগন যে আশা এবং স্বপ্ন নিয়ে বিদেশের কোন  শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তি হয় তা যেন বাস্তবে রূপ পায় তা নিশ্চিত করার দায়িত্ব সংশ্লিষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহের। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমুহের এ ব্যাপারটি ভালো করে অনুধাবন করা উচিৎ বলে আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি। অন্যথায়, পারস্পরিক সম্পর্ক উন্নয়নের দীর্ঘমেয়াদি প্রক্রিয়া বাধাগ্রস্থ হবে বলে আমার ব্যক্তিগত অভিমত।

শিক্ষা এবং জ্ঞান অর্জনের মাধ্যম সমুহকে বানিজ্যিকভাবে উপস্থাপনের পরিবর্তে বিদেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমুহ যদি দুই দেশের দীর্ঘমেয়াদি সম্পর্ক উন্নয়নের কাজে ব্যবহার করে, তবে জী বাংলাদেশ সে সকল প্রতিষ্ঠান সমুহকে তাদের কার্যক্রম পরিচালনায় আন্তরিকভাবে সহায়তা করতে প্রস্তুত। 

আসুন, সম্মিলিতভাবে জ্ঞান অর্জনের নব দিগন্ত রচনা করি এবং বিকশিত করি মানব সত্ত্বাকে।

সর্বশেষ সম্পাদিত: ০৭ ডিসেম্বর ২০১৮  

সতর্কবাণী: আমাদের প্রকাশিত লেখা বা নিবন্ধগুলি পূর্বানুমতি ব্যতীত কোন প্রকার বানিজ্যিক প্রকাশনা বা অন্য কোন মাধ্যমে হুবাহু বা আংশিক সম্পাদিত আকারে প্রকাশনা বা প্রচারনা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ এবং আইন বর্হিভূত।

বিশেষ প্রয়োজনে ইমেইল করুন- biplob12@hotmail.com

Click here to read in English