মেনু
হোম
ভারতে উচ্চ শিক্ষা
শিক্ষার্থীদের জন্য
শিক্ষার্থীদের জন্য

শিক্ষার্থীদের জন্য

প্রিয় শিক্ষার্থী,
শিক্ষা, জ্ঞান অর্জন এবং অালোর পথযাত্রায় জীইই বাংলাদেশে স্বাগতম। জন্মসূত্রে আমরা সবাই মানুষ, কিন্তু সত্যিকারের মানুষ হিসাবে আত্মপ্রকাশের জন্য প্রকৃত শিক্ষা এবং জ্ঞান অর্জন অপরিহার্য বিষয় এবং এর কোন বিকল্প নেই। শিক্ষা এবং জ্ঞান অর্জনের ক্ষেত্রে নীজ দেশে যথেষ্ট সুযোগ না থাকলে বিদেশে থেকে তা অর্জনে কোন বাধা নেই। 
 
বাংলাদেশে এখন প্রায় ১৪০টির মত বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। এত ছোট একটি দেশে এত সংখ্যক বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্বে প্রায় বিরল ঘটনা। তবুও, বাংলাদেশ থেকে প্রতি বছর অনেক শিক্ষার্থী ভারত সহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে উচ্চ শিক্ষা গ্রহনের জন্য গমন করে।  

শিক্ষার্থীদের বৈশ্বিক জ্ঞান অন্বেষণের এই প্রক্রিয়াকে জী বাংলাদেশ সাধুবাদ জানায়। কারন, শিক্ষা এবং জ্ঞানের বিশ্বায়ন ছাড়া পৃথিবীর কোন জাতিই উন্নত হতে পারেনি।  

জী বাংলাদেশ মনে করে, শিক্ষার কাজ হচ্ছে নিজেকে আলোকিত করা, বিকশিত করা এবং প্রকাশিত করা। যে বিষয়ের উপর উচ্চ শিক্ষা এবং জ্ঞান অর্জন করবেন বলে মনস্থির করেছেন, সে বিষয়ে আপনাকে আলোকিত বা প্রকাশিত করতে পারলেই উদ্দেশ্য সার্থক। 

শিক্ষার উদ্দেশ্য, কোন ভালো চাকরি পাওয়া নয়, জ্ঞানের আলোয় নিজেকে আলোকিত করা, যে আলোয় আলোকিত হবেন আপনি, পরিবার, সমাজ, দেশ, জাতি এবং সমগ্র পৃথিবী। চাকরির জন্য ছোটাছুটি না করে, চাকরিকে বাধ্য করুন আপনাকে অনুসরণ করতে।

জী বাংলাদেশ মনে করে, ১৮ থেকে ২৪ বছর বয়স হচ্ছে মানব জীবনের প্রকৃত ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের বয়স। এ সময়টিতে যে ভিত্তি স্থাপিত হবে তার ফসল ভোগ করবেন বাকি জীবন।

যে সকল শিক্ষার্থী এ সময়টাকে প্রকৃত মেধা অন্বেষণে কাজে লাগাবে তাদের ভবিষ্যৎ ফুলের মত প্রস্ফুটিত হবে। আর যারা এলোমেলো বিচ্ছিন্ন অবস্থায় কাজে লাগাবে তাদের জীবনটাই হয়ে যাবে এলোমেলো এবং বিচ্ছিন্ন। 

আমরা বিশ্বাস করি, কারো কথায় প্ররোচিত হয়ে নয়, আপন সিদ্ধান্ত, ক্ষমতা এবং যোগ্যতা বলেই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দেশে এবং বিদেশে উচ্চ শিক্ষার।

আমরা মনে করি, আপনার জীবনের সবচেয়ে বড় বিচারক আপনি, কেননা আপনার মধ্যে বিদ্যমান ক্ষমতা, অক্ষমতা, সফলতা, ব্যর্থতা, প্রতিভা, সম্ভাবনা ইত্যাদি সম্পর্কে সবচেয়ে ভালো জ্ঞান রয়েছে আপনার। মনে রাখা উচিৎ, আপনার আলোকিত জীবনের সূফল ভোগ করবে পরিবার, সমাজ এবং গোটা জাতি কিন্তু কুফল ভোগ করবেন আপনি একা।

তাই, আমরা অনুরোধ জানাই, আপনার জীবনের অন্তত ১৮ থেকে ২৪ বছর বয়সটাকে প্রকৃত জ্ঞান অর্জনের কাজে ব্যবহার করুন। সূচনা করুন সম্ভাবনার নব দিগন্ত এবং আলোকিত করুন মানব সভ্যতাকে। 

প্রিয় শিক্ষার্থী, ধৈর্য্য সহকারে আমাদের উপস্থাপিত বিষয়সমুহ পড়ার এবং অবগত হওয়ার জন্য ধন্যবাদ। 

বিদেশের কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়ালেখা করার জন্য ভর্তি হওয়ার পূর্বে নিশ্চিত হয়ে নিন আপনার উদ্দেশ্য, কর্মজীবনের ক্ষেত্রসমুহ, ক্ষমতা, যোগ্যতা, অর্থনৈতিক সক্ষমতা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের গুনগত মান, পড়ালেখার পরিবেশ ইত্যাদি। 

আমরা শিক্ষার্থীদের শুধুমাত্র, ভারতে উচ্চ শিক্ষা গ্রহনের ব্যপারে সঠিক সিদ্বান্ত গ্রহনে সহায়তা করি এবং এর বিনিময়ে কোন ধরনের কনসালটেন্সি চার্জ গ্রহন করিনা। অতএব, আপনি যদি ভারতে উচ্চ শিক্ষা গ্রহনের ইচ্ছা পোষণ করেন, তবে আমাদের অফিসে সরাসরি যোগাযোগ করে জেনে নিতে পারেন বাস্তব সত্য। 

আপনাকে ধন্যবাদ।  

সর্বশেষ সম্পাদিত: ০৭ ডিসেম্বর ২০১৮  

সতর্কবাণী: আমাদের প্রকাশিত লেখা বা নিবন্ধগুলি পূর্বানুমতি ব্যতীত কোন প্রকার বানিজ্যিক প্রকাশনা বা অন্য কোন মাধ্যমে হুবাহু বা আংশিক সম্পাদিত আকারে প্রকাশনা বা প্রচারনা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ এবং আইন বর্হিভূত।

Click here to read in English